শিরোনাম
গ্রেফতার বন্ধ না করলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে: ঐক্যফ্রন্টপর্ব-২ ছদ্মবেশী অনুসন্ধান।। মহাসড়কে টাকার ছড়াছড়ি! (ভিডিও)চকরিয়ায় বিএনপির প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা সাংবাদিকসহ আহত ২০রাজনীতিতেও দেশপ্রেমের নজির স্থাপন করতে চান মাশরাফি‘গৌরবময় স্বাধীনতা’ ব্যতিক্রমী কাজের মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন এসপি শাহ মিজানব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ, থমথমে নোয়াখালীআওয়ামী লীগের ইশতেহার ঘোষণা ১৮ ডিসেম্বরআমজাদ হোসেনের সম্মানে তিন দিন শুটিং বন্ধকুয়েতে আকামা বদলের নতুন নিয়ম চালু হচ্ছেউলিপুর আ.লীগ সভাপতি শিউলি বহিষ্কারবিজয়ের সাজে সজ্জিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়মেঘালয়ে ‘ইঁদুরের গর্তে’ নিখোঁজ ১৩ গ্রামবাসীকাশ্মিরে সংঘর্ষ গুলি, নিহত ১১দিনাজপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুনারীদের অবদানে রাজশাহী আরও এগিয়ে যাবে : মেয়র লিটনরাজধানীর পুরান ঢাকায় বাসা থেকে গ্রেনেড উদ্ধারভোটকক্ষ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে না: সিইসিশিবগঞ্জে সাবেক পৌর কাউন্সিলরসহ গ্রেফতার ৩ইবিতে শীতকালীন ছুটি ২৯ ডিসেম্বর হতে ৯ জানুয়ারিঝালকাঠিতে জাপার প্রচার আছে মাঠে নেই প্রার্থী ও কর্মী

সুইডেনে ইয়েমেন শান্তি আলোচনা

আন্তর্জাতিক: ইয়েমেনি সরকারের প্রতিনিধি দল ও হুথি বিদ্রোহী প্রতিনিধিদের মধ্যে আজ (বৃহস্পতিবার) শান্তি আলোচনা শুরু হবে বলে এক ঘোষণায় নিশ্চিত করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের বিশেষ দূত মার্টিন গ্রিফিথ এক অফিসিয়াল টুইট বার্তায় বলেন, ২০১৮ সালের ৬ ডিসেম্বর সুইডেনে নতুন করে ইয়েমেনের রাজনৈতিক প্রক্রিয়া শুরুর ঘোষণা দিচ্ছে জাতিসংঘ।

ইয়েমেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদ-আল ইয়ামিনির নেতৃত্বে সরকারের ১২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বুধবার বিকেলে স্টকহোমে পৌঁছেছে। এর একদিন আগেই বিদ্রোহী দলের প্রতিনিধিরা ইয়েমেনের রাজধানী সানা থেকে রওনা করেছেন। জাতিসংঘের বিশেষ দূতও ইতোমধ্যেই সুইডেনে পৌঁছে গেছেন।

২০১৬ সালের পর এটাই সৌদি সমর্থিত ইয়েমেন সরকার এবং ইরানপন্থি হুথি বিদ্রোহীদের মধ্যে প্রথম শান্তি আলোচনা। দেশটিকে কয়েক বছর ধরে চলা সহিংসতার ঘটনায় প্রায় দেড় কোটি মানুষকে দুর্ভিক্ষের দিকে ঠেলে দিয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, হুথিদের বিরুদ্ধে সরকারের লড়াইয়ে সৌদি আরব এবং এর মিত্র বাহিনী অংশ নিয়েছে। এতে প্রায় ১০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। জাতিসংঘ সতর্ক করে বলেছে, বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ মানবিক সংকটের মুখে রয়েছে ইয়েমেন।

এখনই যদি এই যুদ্ধ আর সহিংসতা থামানো সম্ভব না হয় তবে লাখ লাখ মানুষের জীবন বিপন্ন হবে। মৃত্যু হবে কয়েক লাখ শিশুর। সেকারণেই ইয়েমেন সরকারের সঙ্গে হুথি বিদ্রোহীদের শান্তি আলোচনাকে বেশ গুরুত্ব দিচ্ছে জাতিসংঘ।

সংবাদটি শেয়ার করুন..