শিরোনাম
গ্রেফতার বন্ধ না করলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হবে: ঐক্যফ্রন্টপর্ব-২ ছদ্মবেশী অনুসন্ধান।। মহাসড়কে টাকার ছড়াছড়ি! (ভিডিও)চকরিয়ায় বিএনপির প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা সাংবাদিকসহ আহত ২০রাজনীতিতেও দেশপ্রেমের নজির স্থাপন করতে চান মাশরাফি‘গৌরবময় স্বাধীনতা’ ব্যতিক্রমী কাজের মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন এসপি শাহ মিজানব্যারিস্টার মাহাবুব উদ্দিন খোকন গুলিবিদ্ধ, থমথমে নোয়াখালীআওয়ামী লীগের ইশতেহার ঘোষণা ১৮ ডিসেম্বরআমজাদ হোসেনের সম্মানে তিন দিন শুটিং বন্ধকুয়েতে আকামা বদলের নতুন নিয়ম চালু হচ্ছেউলিপুর আ.লীগ সভাপতি শিউলি বহিষ্কারবিজয়ের সাজে সজ্জিত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়মেঘালয়ে ‘ইঁদুরের গর্তে’ নিখোঁজ ১৩ গ্রামবাসীকাশ্মিরে সংঘর্ষ গুলি, নিহত ১১দিনাজপুরে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুনারীদের অবদানে রাজশাহী আরও এগিয়ে যাবে : মেয়র লিটনরাজধানীর পুরান ঢাকায় বাসা থেকে গ্রেনেড উদ্ধারভোটকক্ষ থেকে সরাসরি সম্প্রচার করা যাবে না: সিইসিশিবগঞ্জে সাবেক পৌর কাউন্সিলরসহ গ্রেফতার ৩ইবিতে শীতকালীন ছুটি ২৯ ডিসেম্বর হতে ৯ জানুয়ারিঝালকাঠিতে জাপার প্রচার আছে মাঠে নেই প্রার্থী ও কর্মী

৮২ বছর পুরনো রেকর্ড ভেঙে ইয়াসির শাহ’র বিশ্বরেকর্ড

খেলা: বিশ্বরেকর্ড গড়তে পারতেন প্রথম ইনিংসেই। কিন্তু তাকে সুযোগ না দিয়ে বিলাস আসিফ পাঁচ উইকেট নিয়ে নেয়ায় অপেক্ষা বাড়ে মাইলফলকের। তবে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি পাকিস্তানের লেগস্পিনার ইয়াসির শাহকে। ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেই করে ফেলেছেন বিশ্বরেকর্ড।

তৃতীয় দিন শেষ বিকেলে টম লাথামকে আউট করে থেমেছিলেন ১৯৯’তে। পরদিন সকালে এসেই অভিষিক্ত উইলি সমারভিলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন ইয়াসির শাহ। পূরণ করেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২০০ উইকেট। তাও কি-না মাত্র ৩৩ ম্যাচে। দ্রুততম ২০০ উইকেট নেয়ার বিশ্বরেকর্ড এটিই।

বিশ্বরেকর্ড গড়ার পথে ইয়াসির শাহ ভেঙেছেন ক্ল্যারি গ্রিমেটের ৮২ বছর পুরনো রেকর্ড। অস্ট্রেলিয়ার এ লেগস্পিনার ১৯৩৬ সালে মাত্র ৩৬ টেস্ট খেলে নিয়েছিলেন ২০০ উইকেট। যে রেকর্ড টিকে ছিলো পুরো ৮২ বছর। পাকিস্তানি লেগস্পিনার তিন ম্যাচ কম খেলেই ভেঙে দিলেন সে রেকর্ড।

এর আগে ১০০ উইকেট নেয়ার পথেও যৌথভাবে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন ইয়াসির। মাত্র ৯ টেস্টে ১৫ উইকেট পূরণ করার পরে, ১০০ উইকেট নিতে তিনি খেলেছিলেন ১৭টি টেস্ট। পরের ১০০ উইকেট নিতে তার প্রয়োজন পড়লো কেবল ১৬টি ম্যাচ।

ম্যাচের হিসেবে দ্রুততম হলেও অভিষেকের পর থেকে সময়ের হিসেবে তার চেয়েও দ্রুততম ২০০ উইকেট শিকারী রয়েছেন আরও দুই জন। ইংলিশ অফস্পিনার অভিষেকের ৩ বছর ৩৪৮ দিনে এবং একই দেশের কিংবদন্তী অলরাউন্ডার ইয়ান বোথাম অভিষেকের ৪ বছর ৩০তম দিনে এ মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন। ইয়াসিরের ২০০ উইকেট এলো অভিষেকের ৪ বছর ৪২ দিন পরে।

টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম ২০০ উইকেট শিকারীর তালিকা

১/ ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান) – ৩৩ টেস্ট, ২০১৮ সাল
২/ ক্ল্যারি গ্রিমেট (অস্ট্রেলিয়া) – ৩৬ টেস্ট, ১৯৩৬ সাল
৩/ রবিচন্দ্রন অশ্বিন (ভারত) – ৩৭ টেস্ট, ২০১৬ সাল
৪/ ডেনিস লিলি (অস্ট্রেলিয়া) – ৩৮ টেস্ট, ১৯৭১ সাল
৫/ ওয়াকার ইউনুস (পাকিস্তান) – ৩৮ টেস্ট, ১৯৯৫ সাল

সংবাদটি শেয়ার করুন..