আজ: ১৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

পাইকগাছায় নৈশপ্ররহী আজিজ ধরাকে সরা জ্ঞান করছে

মহানন্দ অধিকারী মিন্টু: খুলনার পাইকগাছায় লোনাপানি গবেষণা কেন্দ্রে নৈশপ্রহরীর বিরুদ্ধে তথ্য গোপণ করে চাকরি করার অভিযোগ উঠেছে। আইন ভঙ্গ করে চাকুরী করায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও অন্যান্য সহকর্মীদের মধ্যে অন্তোষ বিরাজ করছে।

জানাগেছে, পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড বান্দিকাটী গ্রামের আব্দুল গণি সরদারের পুত্র আব্দুল আজিজ বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট লোনাপানি কেন্দ্রে মাস্টার রোলে দীর্ঘদিন প্রহরী (নাইট গার্ট) হিসাবে চাকরী করছেন। এলাকাবাসী জানান, চাকুরীর আগে তিনি ভ্যান চালাতেন। চাকুরীর কয়েক বছর পর তথ্যগোপন করে অন্যান্য পেশায় জড়িয়ে পড়েন। অন্যপেশায় এসেই “ধরাকে সরা জ্ঞান” করে তুলেন। বিষয়টি সেই সময়ে লোনাপানি কেন্দ্রের সাবেক মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শ্যামলেন্দু বিকাশ সাহা এর দৃষ্টি গোচর হলে তাঁর বিরুদ্ধে প্রাথমিক ব্যবস্থানেন। প্রতিষ্ঠানের নিয়ম মেনে চাকুরী করবেন এবং অন্যপেশা থেকে বিরত থাকবেন বলে একটি মুচলেকাদেন নৈশপ্রহরী আজিজ।

লোনাপানি গবেষণা কেন্দ্রের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মকবুল হোসেন জানান, আব্দুল আজিজ অত্র প্রতিষ্ঠানের মাস্টার রোলের চাকুরী করেন। এর আগে সে এলাকায় ভ্যান চালাতো। ড. শ্যামলেন্দু বিকাশ স্যারের সময় সাদা কাগজে একটা মুচলেকা দিয়েছিলেন যা আমি দেখেছি। এ ব্যাপারে তাকে একাধিকবার সতর্ক করা হয়েছে। কত দিন চাকুরী করছেন বলতে না পারলেও আব্দুল আজিজ মুচলেকার বিষয় অস্বীকার করেন।

গত কয়েক মাস আগে আজিজ তফেল ঔষধালয় (দাওয়াখানা) এর মালিক আমির হোসেন এর কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। গত ২৪ ডিসেম্বর ভূক্তভোগী আমির হোসেন আজিজের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে লোনাপানি কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. লুৎফর রহমান জানান, আমি আসার পর জেনেছি তিনি একটি মুচলেকা দিয়েছেন। তদন্ত পূর্বক তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন