আজ: ২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

মিথ্যা মামলা থেকে রেহাই পাননি ইউপি সদস্য রণধীর কান্তি দাশ রান্টু

আমিনুল হক রুবেল, জগন্নাথপুর প্রতিনিধি।

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও দাস নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা রণধীর কান্তি দাস রান্টুকে মামলায় জড়িয়ে হয়রানীর ঘটনায় উপজেলার সর্বত্র প্রতিবাদের ঝড় বইছে।

ঘটনার সাথে জড়িত না থাকা সত্বেও একজন সহজ-সরল নিরীহ ও এলাকার জনপ্রিয় জনপ্রতিনিধি রান্টুকে মামলায় ফাসানোর ঘটনা মেনে নিতে পারছেন না প্রতিবাদী জনতা। সবার দাবি তাঁকে যেন এ মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

এদিকে-৯ এপ্রিল মঙ্গলবার ইউপি সদস্য রণধীর কান্তি দাস রান্টুকে মামলা থেকে অব্যাহতির দাবিতে উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চিলাউড়া-হলদিপুর ইউপি চেয়ারম্যান আরশ মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় প্যানেল চেয়ারম্যান বাবুল মাহমুদ, ইউপি সদস্য হিরা মিয়া, সুজাত মিয়া, রুবেল মিয়া, ইকবাল হোসেন, রাফিয়া বেগম, সাকিরুন বেগম সহ এলাকার প্রতিবাদী জনতা অংশ গ্রহন করেন।

জানা গেছে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি উপজেলার দাস নোয়াগাঁও গ্রামে বার্ষিক কীর্তনে ডেকোরেটার্সের কাজ না পাওয়ায় গ্রামের গোবিন্দ দাস নামের এক ব্যক্তির হামলায় একই গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য অনিল চন্দ্র দাস ও রসময় দাস আহত হন।

এ ঘটনায় আহত অনিল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে হামলাকারী গোবিন্দ দাস ও বর্তমান ইউপি সদস্য রণধীর কান্তি দাস রান্টু সহ ৭ জনকে আসামী করে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। অথচ এ হামলার সময় ইউপি সদস্য রণধীর কান্তি দাস রান্টু বেড়িবাধের কাজে ছিলেন। তিনি ঘটনার সাথে জড়িত না থাকা সত্বেও মামলা দিয়ে হয়রানীর ঘটনায় সর্বত্র প্রতিবাদের ঝড় বইছে

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 11
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান

আপনার ই-মেইল আইডি গোপন রাখা হবে।