আজ: ১৯শে জুলাই, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে ঢাবিতে ছাত্র-শিক্ষকের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

আবু হুরাইরা আতিক, ঢাবি প্রতিনিধি।

ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত রাফিকে যৌন হয়রানি ও পুড়িয়ে হত্যার প্রতিবাদ জানাতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সভার আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সচেতন ছাত্র ও শিক্ষকেরা। সোমবার (১৫ এপ্রিল) বেলা ১২ টায় ঢাবির অপরাজেয় বাংলার নিচে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সভা শুরু হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পঞ্চাশোধিক শিক্ষক ও দেড় শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়। শহীদ জিয়াউর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ জিয়া রহমান বলেন: আমরা আজ যৌন নির্যাতনের শিকার হওয়াদের পক্ষে বিচারের জন্য একত্রিত হয়েছি।

যাতে করে সর্বমহলকে সচেতন করে প্রতিবাদের আওয়াজ তুলতে পারি এবং নির্যাতন কারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে পারি। মৃত্তিকা বিভাগের অধ্যাপক ড. আকতার হোসেন খান বলেন: আমরা এমন এক সমাজে বাস করছি, যে সমাজে একের পর এক নারী ধর্ষিতা হচ্ছে।

একের পর এক আমার মা বোনেরা সম্ভ্রম হারাচ্ছে, প্রাণ হারাচ্ছে। এই অবস্থা চলতে দেওয়া যায় না।এই মানুষরুপী জানোয়ারদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আমরা সংগ্রাম চালিয়ে যাবো। প্রতিবাদ জানাতে এক নারী শিক্ষক বলেন: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও শিক্ষক মিলে এই লম্পট সিরাজদৌলার একটা ঘৃণাস্তম্ভ তৈরী করা হোক যাতে প্রতিদিন শিক্ষক ও ছাত্ররা পাথর নিক্ষেপ করতে পারে।

কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে কিভাবে নারীরা যৌন হয়রানির শিকার হয় জানতে চাওয়া হলে এক ছাত্রী জানান, প্রায়শই আমরা শিক্ষকদের দ্বারা যৌন হয়রানির শিকার হই।কিন্তু সামাজিক সম্মান অসম্মানের কথা ভেবে প্রকাশ করতে পারি না। কিন্তু যখন এই নির্যাতন দেয়ালে পীঠ আটকে যায় তখন সেটা সমাজে ও মিডিয়াতে প্রকাশ করা হয়। এই ক্ষেত্রে নুসরাত আমাদের জন্য অনুপ্রেরনা। আবার আতংকের কারণ ও বটে। যদি এর উপযুক্ত বিচার করা হয় নারীরা প্রতিবাদ করতে সাহস পাবে অন্যথায় নারীরা আরও হুমকির শিকার হবে।তাই ধর্ষনের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

উল্লেখ্য, নুসরাত রাফি চলতি বছরের ফেনীর সোনাগাজী মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী ছিল।উক্ত মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির মামলা প্রত্যাহার না করায় পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে তুলে নিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়।পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নুসরাত মারা যান।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 30
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান

আপনার ই-মেইল আইডি গোপন রাখা হবে।