আজ: ২০শে জুন, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

হবিগঞ্জে আলোচিত বৃদ্ধা হত্যা মামলা রহস্য উদঘাটন, আদালতে স্বীকারোক্তি

আজিজুল ইসলাম সজীব, হবিগঞ্জ ।

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী সাজেরা খাতুন হত্যা মামলার আটক অন্যতম আসামী ঘাতক আব্দুর রউফ (২৫) আদালতে লোমহর্ষক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

গতকাল রাত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল ইসলাম এ ব্যাপারে প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, হত্যাকান্ডের ঘটনার প্রায় ৯ মাস পর পুলিশ হত্যার মুল আসামীকে গ্রেফতার ও রহস্য উদঘাটন করতে সক্ষম হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম, সদর থানার ওসি মুহাম্মদ সহিদুর রহমান, তদন্ত ওসি জিয়াউর রহমান এবং মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে পইল গ্রাম থেকে হত্যাকান্ডের মূল হোতা আব্দুর রউফকে আটক করে।

আটককৃত আসামী, সদর উপজেলার নাজিরপুর গ্রামের আব্দুন নূরের পুত্র।

রাতভর জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত এবং কারা কারা আরও জড়িত আছে তা প্রকাশ করে। তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ তা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপন করেন নি।

কি কারণে ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসী সঞ্জব আলীর স্ত্রী সাজেরা খাতুন (৫০) কে হত্যা করা হয়েছে এ ব্যাপারে পুলিশকে আব্দুর রউফ জানায়, আব্দুর রউফসহ আরও ৪/৫ জন যুবক ওই প্রবাসীর বাড়িতে চুরি করতে যায়। এ সময় প্রবাসীর পুত্রবধু বাড়িতে ছিল না।

এক পর্যায়ে টাকা পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার চুরি করার সময় সাজেরা তাদের চিনে ফেলায় হাত-পা বেধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে চলে যায়।

মঙ্গলবার বিকালে আটককৃত আব্দুর রউফকে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে হাজির করলে ১৬৪ ধারা জবানবন্দিতে হত্যা কথা স্বীকার করে উল্লেখিত বিষয়ে জবানবন্দি দেয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, শীঘ্রই আদালতে চার্জশীট দাখিল করা হবে। এছাড়া এই মামলার আরও অন্যান্য আসামীদের ধরতে পুলিশের একটি বিশেষ টিম অভিযানে অব্যাহত আছে।

প্রসঙ্গ, ২০১৮ সালের ২১ সেপ্টেম্বর নিহত সাজেরা খাতুন হাত-পা ও মুখ কাপড় দিয়ে বাধা ছিল। অনেকে মনে করছেন জুয়ার টাকার জন্য দুর্বৃত্তরা ওই বাড়িতে চুরি করতে গিয়ে গৃহবধুকে হত্যা করেছে। তবে এ হত্যাকান্ড রহস্যজনক বলে মনে করা হচ্ছে।

খবর পেয়ে ঘটনার সদর থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 6
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান

আপনার ই-মেইল আইডি গোপন রাখা হবে।