আজ: ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

বাঁশি বাজিয়ে-পতাকা নেড়ে ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

বাংলালাইভ ডেস্ক ।

বাঁশি বাজিয়ে এবং পতাকা নেড়ে বেনাপোল-ঢাকা-বেনাপোল রুটে আন্তঃনগর ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা।

বুধবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নতুন এবং বর্ধিত এই ট্রেন সার্ভিস উদ্বোধন করেন তিনি।এছাড়া ঢাকা-রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটে বিরতিহীন আন্তঃনগর ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

বাসস জানায়, দ্রুতগতির বিরতিহীন আধুনিক ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেন সার্ভিসের ফলে বেনাপোল-ঢাকা-বেনাপোল রুটে চলাচলকারী যাত্রী সাধারণের নিরাপদ আসা-যাওয়া সহজতর, দ্রুততর ও আরামদায়ক হবে।

সংগৃহীত কোচসমূহের অন্যতম নতুন বৈশিষ্ট্য হলো- বায়ো-টয়লেট সংযোজন। ট্রেনটিতে প্রতিবন্ধী যাত্রীদের হুইল চেয়ারসহ চলাচলের সুবিধার্থে থাকছে প্রশস্ত দরজা (মেইন ও টয়লেট দরজা) এবং নির্ধারিত আসনের সুবিধা।

প্রতিটি কোচ স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি এবং অত্যাধুনিক যাত্রী সুবিধা সম্বলিত। প্রতিটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কোচে আধুনিক ও উন্নতমানের রুফ মাউন্টেড এয়ার কন্ডিশনার ইউনিট এবং এয়ার কার্টেইনের ব্যবস্থা রয়েছে।

যাত্রী সাধারণের জন্য আধুনিক ও মানসম্মত চেয়ার, বার্থ, স্টেয়ার, পার্সেল রেক, টিভি মনিটর হ্যাঙ্গার, ওয়াই-ফাই রাউটার হ্যাঙ্গার, মোবাইল চার্জার এর ব্যবস্থা রয়েছে।

‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ১২টি কোচ দ্বারা চলবে। ট্রেনটিতে এসি সিট, এসি চেয়ার ও শোভন চেয়ার শ্রেণীর সর্বমোট ৮৯৬টি (৭৯৫ নং ট্রেনের ক্ষেত্রে) এবং এসি বার্থ, এসি চেয়ার ও শোভন চেয়ার শ্রেণীর সর্বমোট ৮৭১টি (৭৯৬ নং ট্রেনের ক্ষেত্রে) আসনের ব্যবস্থা থাকবে।

বেনাপোল ট্রেনের সাপ্তাহিক বন্ধের দিন (৭৯৫) বুধবার ও (৭৯৬) বৃহস্পতিবার। ট্রেনটি বেনাপোল থেকে দুপুর ১টায় ছেড়ে ঢাকা পৌঁছাবে রাত ৯টায় এবং ঢাকা থেকে রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে বেনাপোল পৌঁছাবে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে।

বেনাপোল-ঢাকা পর্যন্ত উভয় দিকে যাত্রী ভাড়া- শোভন চেয়ার ৫৩৪ টাকা, এসি চেয়ার ১০১৩ টাকা (ভ্যাটসহ), এসি সিট-১২১৩ টাকা (ভ্যাটসহ), এসি বার্থ ১৮৬৯ টাকা (ভ্যাট+বেডিং চার্জসহ)।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 7
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান