আজ: ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

আমার কোনো তাড়া নেই

বিনোদন ডেস্ক ।

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জানিতা আহমেদ ঝিলিক। চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ প্রতিযোগিতার প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন হয়ে গানে ক্যারিয়ার শুরু করেন। সংগীতাঙ্গনে এরই মধ্যে এক যুগ পার করেছেন। তার কয়েকটি গান জনপ্রিয়তা পেয়েছে। খুবই ধীরগতিতে কিন্তু নিরবচ্ছিন্নভাবে এগিয়ে চলছেন এই শিল্পী। আজ আরটিভিতে লাইভ অনুষ্ঠানে গাইবেন তিনি। সমসাময়িক বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছেন মাসিদ রণ

কেমন আছেন?

এই তো বেশ ভালো। সবার দোয়া আর ভালোবাসায় ভালোই সময় কাটছে। গান আমার প্রথম ভালোবাসা। সেই গান নিয়েই এত দিন আছি। এটা ভাবতে বেশ ভালো লাগে। ভবিষ্যতেও যাতে গানে গানে মুখরিত থাকতে পারি, সবার কাছে এই শুভকামনা প্রত্যাশা করি।

আজ আরটিভির লাইভ অনুষ্ঠানে গাইবেন…

হ্যাঁ, আজ রাতেই আরটিভির লাইভ অনুষ্ঠানে গাইব। আমাদের সবার প্রিয় প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে তার লেখা এবং তার পরিচালিত সিনেমার জনপ্রিয় গানগুলোই গাইব। আমার সঙ্গে আরও থাকবেন ক্লোজআপ তারকা রাজীব। চেষ্টা করব এ প্রজন্মের দুই শিল্পী মিলে দর্শকদের তাদের প্রিয় গানগুলো সুন্দর করে উপস্থাপন করতে। এটা আমার পক্ষ থেকে হুমায়ূন আহমেদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি।

সংগীতাঙ্গনে এক যুগ পার করলেন, কেমন লাগে বিষয়টা ভাবতে?

প্রায়ই সিনিয়র শিল্পীদের বলতে শুনি এখনকার শিল্পীরা নাকি দুদিনের জন্য আসেন, পরে হারিয়ে যান। কিন্তু আমি হয়তো নিজেকে কিছুটা হলেও প্রমাণ করতে পেরেছি। তাই তো সংগীতাঙ্গনে এক যুগ কেটে গেল। আরও অনেক যুগ কাটানোর ইচ্ছা। এ সময় আমি কখনোই থেমে থাকিনি। গানের মধ্যেই ছিলাম। আজকের অবস্থানে আমি বেশ খুশি।

কিন্তু আপনি খুব কম কাজ করেছেন…

এটা শতভাগ সত্য। আমি আসলেই খুব কম কাজ করেছি। আমার পরে এসে হয়তো অনেকেই বেশিসংখ্যক গান গেয়েছে, কিন্তু কয়টা গান শ্রোতাপ্রিয়তা পেয়েছে, সেটাও ভেবে দেখার বিষয়। তা ছাড়া, আমি শুধু শ্রোতাদের জন্য নয়, নিজের মনের ক্ষুধা মেটাতে গান গাই। তাই নিজের যে গানটি ভালো লাগে না, সেটি গাই না। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে হয়তো অনেকের অনুরোধে কিছু মানহীন কাজ করতে হয়েছে। কিন্তু ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এসে গানের ভালো-মন্দ অনেকটাই বুঝতে শিখেছি। তাই মানহীন গানকে বিনয়ের সঙ্গে না বলতে শিখেছি। এ জন্যই আমার গানের সংখ্যা খুব বেশি নয়। তবে যে গানগুলো করেছি, তা আমার প্রাণের। কনসার্টে গাইতে গেলে শ্রোতারা আমার অ্যালবামের গান শোনার অনুরোধ করে। এটা আমার সার্থকতা যে, কয়েকটি মৌলিক গান শ্রোতাপ্রিয় হয়েছে। আমার তিনটি একক অ্যালবাম রয়েছে। তাতে তিন ডজন মৌলিক গান আছে। এখনকার অনেক শিল্পী আছেন, যাদের কোনো একক অ্যালবাম নেই। সব মিলিয়ে ধীরে সুস্থে কাজ করে যাচ্ছি। আমার কোনো তাড়া নেই।

এখন নাকি মিক্সড অ্যালবামে গাইতে চান না?

হ্যাঁ, বেশ কিছুদিন আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি পারতপক্ষে মিক্সড অ্যালবামে গাইব না। এর পেছনে কারণ আছে। আমি হয়তো নিজের গানটি যত বার করে গাইলাম। কিন্তু ওই অ্যালবামে অন্য শিল্পীদের এমনসব গান থাকে, যা শুনলে ভক্তরা আমাকে দোষারোপ করে, কেন আমি ওই অ্যালবামে গাইলাম। শুধু মিক্সড অ্যালবাম নয়, এখন যেকোনো গানের ক্ষেত্রেই অনেক বাচ-বিচার করেই গান করি।

নতুন কাজের খবর শুনতে চাই…

এই ঈদে দুটি নতুন একক গানের মিউজিক ভিডিও প্রকাশ পাবে। তাই ঈদটি আমার জন্য বেশ স্পেশাল। দুটি গানেরই কথা লিখেছেন জামাল হোসেন। গান দুটির শিরোনাম ‘উদাস দুপুর’ ও ‘কিছুটা কুয়াশা’। প্রথমটির সুর-সংগীত করেছেন শেখ রেজওয়ান আর দ্বিতীয়টির কাজ করেছেন ক্লোজআপ তারকা মুহিন। দুটি গানের মিউজিক ভিডিও হলে ‘উদাস দুপুর’-এ আমি থাকছি শুধু একজন সংগীতশিল্পী হিসেবে। আর ‘কিছুটা কুয়াশা’ গানের ভিডিওতে পুরোটাতেই আমি। স্টুডিওতে সেট ফেলে চমৎকার একটি কাজ হয়েছে। আশা করছি দুটি গানই দর্শকের পছন্দ হবে।

সম্প্রতি ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন…

তেমন কোনো ভাবনা থেকে ইউটিউব চ্যানেলটি খুলিনি। তা ছাড়া এতে এখন পর্যন্ত তেমন কোনো কনটেন্টও নেই। তাই এ নিয়ে এখনো কোনো কথা বলিনি। আমরা তো বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দর্শক, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান, সংগীতপরিচালকের স্বাদেরই গান করি। সব সময় তা নিজের মনঃপূত হয় না। কিন্তু শিল্পী হিসেবে নিজেরও তো পছন্দ আছে। আমার ইচ্ছা আছে নিজের পছন্দসই কিছু কাজ চ্যানেলে প্রকাশ করতে। বলতে পারেন, অনেকটা স্বাধীনচেতা হয়ে কাজ করার জন্যই নিজস্ব এই প্ল্যাটফরম তৈরি করা।

ব্যক্তিজীবনের কথা

শুনতে চাই…

আমি মা-বাবা, ভাই-বোনের সঙ্গেই থাকি। বাবা গানের মানুষ। মাও গানপাগল। তাদের কাছ থেকে সব সময় সাপোর্ট পাই। আর এখনো আমার রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস ‘সিঙ্গেল’। প্রেম বা বিয়ে যাই করি না কেন, তা নিয়ে লুকোচুরি করার ইচ্ছা নেই। সবাইকে জানিয়েই করব।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 15
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান