আজ: ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

মোড়েলগঞ্জে প্রকাশ্য দিবালোকে আ.লীগ কর্মী আবজাল মোল্লার বসতবাড়ি গুড়িয়ে দিল দুর্বৃত্তরা

এম.পলাশ শরীফ বাগেরহাট।

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে প্রকাশ্য বিদালোকে এক আওয়ামী লীগ কর্মীর বসতবাড়ি গুড়িয়ে চটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। দামি মালামাল লুটে নিয়ে বাকিসব ফেলে দিয়েছে মাছের ঘেরে। এক বেলার খাবার তো দুরের কথা ঘরটিতে এখন রাত্রি যাপন করার মতও কোন পরিবেশ নেই।

মঙ্গলবার বেলা ৩ টার দিকে দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামের আফজাল মোল্লার বাড়িতে এক দিনের ব্যবধানে ২য় দফায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। রবিবার সন্ধ্যায় প্রথম হামলা করা হয় বাড়িটিতে।

বিবাদমান জমি থেকে উচ্ছেদের উদ্দেশে দৈবজ্ঞহাটি গ্রামের বকর ও আতিয়ার খানের নের্তৃত্বে ২০/২৫ জন সংঘবদ্ধ দল এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। আফজাল মোল্লা বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছেন।

মরিয়ম বেগম অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বামী(আফজাল মোল্লা) আওয়ামী লীগের অনেক পুরানো কর্মী। অনেক ষড়যন্ত্রের মধ্যে আমরা বেঁচে আছি। রবিবার প্রথম দফায় হামলার পরে থানায় মামলা করা হয়েছে। যে কারনে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা আবারও হামলা করে ঘর ও সকল গাছপালা মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছে। নগদ ৮৫ হাজার টাকাসহ হাতিয়ে নিয়েছে কয়েক লাখ টাকার মালামাল।

গত ১৬ জুলাই ৪৫ পিচ ইয়াবাসহ স্থানীয় লোকজন আফজাল মোল্লাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। ডাকাতি ও চাঁদাবাজির অভিযোগেও মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ইয়াবাসহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর ও অন্যান্য সকল মামলাই ষড়যন্ত্রমূলক বলে দাবি করেছেন আফজাল মোল্লার স্ত্রী মরিয়ম বেগম। তিনি বলেন, ‘তাদের এই বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদের জন্যই একটি প্রভাবশালী মহল পরিকল্পিতভাবে আফজাল মোল্লার নামে অনেক মামলা সাজিয়ে তাকে জেলহাজতে ঢুকিয়ে রেখেছে’। এ ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছেন মরিয়ম বেগম।

এ বিষয়ে আতিয়ার খান বলেন, ‘ওই জমি নিয়ে মামলা চলছে। কিন্তু মামলায় নিস্পত্তি হতে দেরি হচ্ছে তাই আমরা নিজেরাই ব্যবস্থা নিয়েছি। ওই জমি আমাদের’।

এ বিষয়ে থানার ওসি(তদন্ত) ঠাকুর দাশ মন্ডল বলেন, আফজাল মোল্লার বাড়ি ভাঙচুরের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আব্দুর রহমান ও রবিউল শেখ নামে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের অভিযান চলছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার অভিযোগ দিলে মামলা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 58
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান