আজ: ১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইংরেজি
শিরোনাম

সব জেলার রাজাকারদের তালিকা করার নির্দেশ

অনলাইন ডেস্ক । বাংলালাইভ২৪.কম

দেশের প্রত্যেক জেলার রাজাকারদের তালিকা করার জন্য জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

রোববার জাতীয় সংসদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৬ষ্ঠ বৈঠকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি শাজাহান খান এর সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মইনউদ্দীন খান বাদল, রাজি উদ্দিন আহমেদ, মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম), এ বি তাজুল ইসলাম এবং কাজী ফিরোজ রশীদ অংশগ্রহণ করেন।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি নিদর্শন ও বধ্যভুমি সংরক্ষণে সভায় আলোচনা হয়। সঠিকভাবে এ সকল স্মৃতি সংরক্ষণের লক্ষ্যে এতদসংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়।

জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইনের বিধিমালার খসড়া প্রস্তুত করার লক্ষ্যে উক্ত প্রতিষ্ঠানটির সভায় একটি উপ-কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে স্থায়ী কমিটির সভায় জানানো হয়।

প্রতিটি উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স শহর থেকে বিচ্ছিন্ন স্থানে নির্মাণ না করে যথোপযুক্ত স্থানে নির্মাণের জন্য বৈঠকে আলোচনা হয়।

বৈঠকে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব, মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন ।
দেশের প্রত্যেক জেলার রাজাকারদের তালিকা করার জন্য জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

রোববার জাতীয় সংসদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ৬ষ্ঠ বৈঠকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি শাজাহান খান এর সভাপতিত্বে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মইনউদ্দীন খান বাদল, রাজি উদ্দিন আহমেদ, মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম (বীর উত্তম), এ বি তাজুল ইসলাম এবং কাজী ফিরোজ রশীদ অংশগ্রহণ করেন।

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি নিদর্শন ও বধ্যভুমি সংরণে সভায় আলোচনা হয়। সঠিকভাবে এ সকল স্মৃতি সংরক্ষণের লক্ষ্যে এতদসংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নের সুপারিশ করা হয়।

জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল আইনের বিধিমালার খসড়া প্রস্তুত করার লক্ষ্যে উক্ত প্রতিষ্ঠানটির সভায় একটি উপ-কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে স্থায়ী কমিটির সভায় জানানো হয়।

প্রতিটি উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স শহর থেকে বিচ্ছিন্ন স্থানে নির্মাণ না করে যথোপযুক্ত স্থানে নির্মাণের জন্য বৈঠকে আলোচনা হয়।

বৈঠকে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ের সচিব, মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানান